মেলবোর্ন আদলে পূর্বাচল স্টেডিয়াম- বাংলাদেশ প্রতিদিন

মেলবোর্ন আদলে পূর্বাচল স্টেডিয়াম- বাংলাদেশ প্রতিদিন

রাজধানীর অদূরে রাজউকের পরিকল্পিত আধুনিক শহর পূর্বাচলে নির্মিত হচ্ছে মেলবোর্ন ক্রিকেট স্টেডিয়াম আদলে ১ লাখ আসনবিশিষ্ট একটি সর্বাধুনিক স্টেডিয়াম। স্টেডিয়ামটি নির্মাণের দায়িত্ব  পেয়েছে অস্ট্রেলীয় একটি প্রতিষ্ঠান। এছাড়া কক্সবাজারে নির্মিত হচ্ছে ১ লাখ আসনের আরেকটি নতুন স্টেডিয়াম।  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে এ দুটি স্টেডিয়াম নির্মাণের উদ্যোগে ধন্যবাদ জানায় যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটি। সংসদ ভবনে গতকাল অনুষ্ঠিত যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটি বৈঠকে এ তথ্য জানানো...
পূর্বাচলে ১৩০ তলা ভবনের জন্য আন্তর্জাতিক নিলাম- প্রথম আলো

পূর্বাচলে ১৩০ তলা ভবনের জন্য আন্তর্জাতিক নিলাম- প্রথম আলো

পূর্বাচল নতুন শহর প্রকল্পে ১৩০ তলা ভবন নির্মাণের জন্য আন্তর্জাতিক নিলাম ডেকেছে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক)। আগামী ১০ মে এ নিলাম হবে বলে বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে রাজউক। এতে একরপ্রতি জমির ভিত্তিমূল্য ধরা হয়েছে ২০ কোটি টাকা। রাজউকের চেয়ারম্যান জি এম জয়নাল আবেদীন ভূঁইয়া প্রথম আলোকে বলেন, বাংলাদেশে দক্ষিণ এশিয়ার সর্বোচ্চ উচ্চতার এ ভবন নির্মাণের জন্য আগে থেকেই যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক একটি নির্মাণপ্রতিষ্ঠান আগ্রহ দেখিয়ে আসছিল। তবে ভবিষ্যতে অনাকাঙ্ক্ষিত আইনি জটিলতা এড়াতে এই নিলাম আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। নিলামে আন্তর্জাতিক পর্যায়ের নির্মাণপ্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে স্থানীয় প্রতিষ্ঠানগুলোও অংশ নেবে। রাজউকের চেয়ারম্যান আরও বলেন, ভবনটি নির্মাণের জন্য এর মধ্যেই পূর্বাচলের ১৯ নম্বর সেক্টরে সেন্ট্রাল বিজনেস ডিস্ট্রিক্ট বা সিবিডি অংশে ৬০ একর জায়গা নির্ধারণ করা হয়েছে। নিলামপ্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে প্রকল্প এলাকার প্রযুক্তিগত সমীক্ষার (টেকনিক্যাল স্টাডি) দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যুরো অব রিসার্চ, টেস্টিং অ্যান্ড কনসালটেশন বিভাগকে। এর আইনগত দিকগুলো দেখভাল করছেন আইনজীবী তানজীব উল আলম। তানজীব উল আলম এই নিলামের বিষয়ে প্রথম আলোকে বলেন, সাধারণত রাজউক আবাসিক ও প্রাতিষ্ঠানিক প্লটের মূল্য নিজেরাই নির্ধারণ করে থাকে। তবে বাণিজ্যিক প্লটের ক্ষেত্রে নিলামের ভিত্তিতে সর্বোচ্চ দরদাতাকে জায়গা হস্তান্তর করা হয়। এর আগে দেশীয় প্রতিষ্ঠানগুলো এসব নিলামে অংশ নিলেও এবারই প্রথম আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে এই নিলামে অংশ নেওয়ার জন্য আহ্বান জানানো হয়েছে। এ ক্ষেত্রে এর প্রস্তুতি ও ডকুমেন্টেশনের কাজেও কিছুটা ভিন্নতা রয়েছে। তানজীব উল আলম আরও বলেন, ৬০ একর জায়গায় সুউচ্চ ভবনটি ছাড়াও এটিকে ঘিরে আরও কিছু ছোট-বড় ভবন ও অন্যান্য স্থাপনা থাকবে। নিলামের আগে নির্মাণপ্রতিষ্ঠানগুলোকে এসব বিষয় বিবেচনায় নিয়ে নকশা জমা দিতে হবে। নিলামের মাধ্যমে ভবন নির্মাণের দায়িত্ব অন্য প্রতিষ্ঠানকে দেওয়া হলেও গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় এর সার্বক্ষণিক তদারকিতে থাকবে রাজউক। এর জন্য রাজউকের পক্ষ থেকে ‘ফোকাল পয়েন্ট’ হিসেবে পূর্বাচল নতুন শহর প্রকল্পের অতিরিক্ত প্রকল্প পরিচালক উজ্জ্বল মল্লিককে...